কাগজ কুড়ানো ছেলেটাই এখন শহরের মেয়র

73
একসময় পেটের খাবার জুটাতে ময়লার স্তুবে কাগজ কুড়াতেন রাজেশ। ছবি: সংগৃহীত।

একটা সময় দুই বেলা ঠিক মত খাবার জুটতো না। যা জুটতো তার জন্য প্রতিদিন হাজারো চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হত। খাবার জুটাতে লেখাপড়া ছেড়ে বাবার সঙ্গে কাগজ কুড়াতে যেতেন বিভিন্ন ময়লার স্তুবে। সেই ব্যক্তিটির নাম রাজেশ কালিয়া সম্প্রতি তিনি ভারতের চণ্ডীগড়ের মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন।

নিজের এলাকাকে স্বচ্ছ রাখতে এক সময় যথেষ্ট সক্রিয় ছিলেন রাজেশ। এই কাজের সূত্রেই তিনি ১৯৮৪ সালে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘে যোগ দেন। ১৯৯৬ সাল থেকে তিনি সক্রিয়ভাবে বিজেপিতে যোগ দেন। ২০১১ সালে প্রথমবার পৌরসভা নির্বাচনে অংশ নেন দাদুমাজরা কেন্দ্র থেকে। কিন্তু কংগ্রেস প্রার্থীর কাছে হারতে হয় তাকে। তবে ২০১৬-তে সেই কেন্দ্র থেকেই জয়লাভ করেন রাজেশ।

যদিও বিরোধীদের মত, তার জয়ের পেছনে বাল্মীকিদের বিরাট ভোট রয়েছে। ওই অঞ্চলে প্রায় ১ লক্ষ ৩০ হাজার বাল্মীকি সম্প্রদায়ভুক্ত মানুষ বসবাস করেন। রাজেশ নিজেও সেই সম্প্রদায়ের। বিরোধীরা একে জাতপাতের রাজনীতি বলেই আখ্যা দিচ্ছেন। তাদের মত, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনেও এই ভোট বিজেপির ঘরে যেতে পারে। যা নিয়ে খানিকটা চিন্তিত কংগ্রেস।

ইত্তেফাক/এসআর

ভাগ