মন্ত্রী হচ্ছেন সোহেল হাজারী

1209

টাঙ্গাইল-৪ আসনের নবনির্বাচিত এমপি আলহাজ্ব মোহাম্মদ হাছান ইমাম খান সোহেল হাজারী কে নতুন মন্ত্রীসভায় অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে বলে একটি নির্ভরশীল সূত্রে আভাষ পাওয়া গেছে।
৭ জানুয়ারী, সোমবার নতুন মন্ত্রীসভার শপথ করার কথা রয়েছে। মাননীয় রাষ্ট্র্রপতি আব্দুল হামিদ আওয়ামীলীগ প্রধান শেখ হাসিনাকে সরকার গঠনের আমন্ত্রন জানালে শেখ হাসিনা নতুন মন্ত্রীসভা গঠনের সিদ্ধান্ত নেন। নতুন মন্ত্রীসভার আকার কেমন হবে এ নিয়েও চলছে ব্যাপক আলোচনা। গত সরকারে থাকা অনেক প্রভাবশালী মন্ত্রী বাদ পড়বেন নতুন মন্ত্রীসভা থেকে। যাদের বিরুদ্ধে গত পাঁচ বছরে দূর্নীতি ও লুটপাটের অভিযোগ রয়েছে এবং মিডিয়ায় আলোচিত ছিলো সেসব মন্ত্রী বাদ পড়তে পারেন বলে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে।
নতুন মন্ত্রীসভায় তরুনদের প্রাধান্যই বেশী দেওয়া হবে। ছাত্র রাজনীতিতে ব্যাপক ভূমিকা পালনকারী, মেধাবী ও দেশপ্রেমিক দায়িত্বশীল তরুনদের মন্ত্রীসভায় নিয়ে আসবেন শেখ হাসিনা। বিশেষ করে আগামীর আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে হেভিওয়েট নেতা বানানোর পরিকল্পনা থেকেও তরুনদের টানা হবে সরকারের মন্ত্রীসভায়। তাছাড়া যেসব আসনে হেভিওয়েটদের পরাজিত করে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন এবং যেসব আসনে পূর্বে পূর্ণমন্ত্রী ছিলেন সেসব আসনের এমপিরা মন্ত্রীসভায় স্থান পেতে পারেন।
এবার নির্বাচনে সকল প্রক্রিয়ার সাথে বেশী ভূমিকা পালনকারী সাবেক ছাত্রনেতাদের মন্ত্রীসভায় উল্লেখযোগ্য সংখ্যক সাবেক ছাত্রনেতাদের স্থান পাবার সম্ভাবনা রয়েছে।
সব কিছু মিলিয়ে ৭ জানুয়ারী মন্ত্রীসভায় কে কে বাদ পড়ছেন আবার কে কে নতুন করে যোগ হচ্ছেন এ নিয়ে চলছে রাজধানীর রাজনীতি পাড়ায়, সচিবালয়, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, সূধাসদনসহ সর্বত্র চুলচেরা আলোচনার ঝড়।
নতুন মন্ত্রীসভা গঠন নিয়ে আলোচনায় রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ টেবিলে সাবেক ছাত্রনেতাদের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন টাঙ্গাইল-৪, কালিহাতী থেকে দ্বিতীয়বার নির্বাচিত এম পি, ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবকলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব মোহাম্মদ হাছান ইমাম খান সোহেল হাজারী, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এনামুল হক শামীম এমপি, প্রধান মন্ত্রীর এপি এস, সাবেক ছাত্রনেতা মা বগুড়ার কৃতি সন্তান সাইফুজ্জামান শেখর, সাবেক ছাত্রনেতা শরীয়তপুরের কৃতি সন্তান ইকবাল হোসেন অপু।এছাড়া ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মর্তুজা নামও আলোচিত হচ্ছে জোরেশোরে। এর মধ্যে টাঙ্গাইলের এমপি তুখোড় ছাত্রনেতা সোহেল হাজারীর আসনে ইতিপূর্বে আওয়ামীলীগের আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী ও বিএনপি-জামাত জোট থেকে শাজাহান সিরাজ পূর্ণমন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছিলেন। সেই কারনে এই ভিআইপি আসন থেকে সোহেল হাজারীকে মন্ত্রী করার চিন্তা-ভাবনা করা হচ্ছে। তাছাড়া বঙ্গের আলীগড় খ্যাত সরকারী সাদত বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ও সরকারী এম এম আলী কলেজের বিপুল ভোটে নির্বাচিত ভিপি ছিলেন সোহেল হাজারী। তবে কার ললাটে মন্ত্রীত্বের তিলক তার পুরোটাই নির্ভর করছে শেখ হাসিনার উপর।
এ ব্যাপারে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের প্রভাবশালী কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, বিশ্ব মানবতার মা, আওয়ামীলীগ প্রধান জননেত্রী শেখ হাসিনা ইতিমধ্যে তালিকা প্রস্তুত করেছেন। এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা মাত্র।
আগামী সোমবার শপথ হবে নতুন মন্ত্রীসভার।তুন মন্ত্রীসভায় তরুনদের প্রাধান্যই বেশী দেওয়া হবে। ছাত্র রাজনীতিতে ব্যাপক ভূমিকা পালনকারী, মেধাবী ও দেশপ্রেমিক দায়িত্বশীল তরুনদের মন্ত্রীসভায় নিয়ে আসবেন শেখ হাসিনা। বিশেষ করে আগামীর আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে হেভিওয়েট নেতা বানানোর পরিকল্পনা থেকেও তরুনদের টানা হবে সরকারের মন্ত্রীসভায়। তাছাড়া যেসব আসনে হেভিওয়েটদের পরাজিত করে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন এবং যেসব আসনে পূর্বে পূর্ণমন্ত্রী ছিলেন সেসব আসনের এমপিরা মন্ত্রীসভায় স্থান পেতে পারেন।

ভাগ