রাঙ্গাবালীতে ঈদকে ঘিরে জমেছে গরু, মহিষও ছাগলের হাট

17

এম এ ইউসুফ আল,রাঙ্গাবালী উপজেলা প্রতিনিধি :
পবিত্র ঈদুল আযাহার দিন যতই কাছে আসছে রাঙ্গাবালী উপজেলায় বাহের চর কোরবানীর পশুর হাট ততই জমে উঠেছে।

ঈদুল আযাহার এখনো ৪ দিন বাকি থাকলেও অন্যান্য বছরের তুলনায় এ বছরে পশুর দাম অনেকগুনে কম থাকায় এবং ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে থাকায় উপজেলার সর্বত্র পশুর হাটগুলোতে আমদানী রপ্তানী চোখে পরার মত।

অন্যান্য বছরের তুলনায় এবাবে প্রায় ১০%ভাগ মানুষের কোরবানীর সংখ্যা বেড়ে গেছে।উপজেলার (মৌডুবী,চরমোন্তাজ,বাধঘাট,)পশুর হাটগুলো ঘুরে দেখা গেছে পশু ক্রেতাদের ভীর চোখে পরার মত।

বিক্রেতাদের মাঝে ও দেখা গেছে আনন্দ,তারা বলে আজ অনেক বেশি পশু বিক্রি হচ্ছে,যাহা বিগত হাটগিলোতে হয়নি।

শনিবার বাহের চর হাটে ক্রেতা মো:মিরাজুল,জাহাঙ্গীর মোল্লা,আবুল বাশার সহ অনেকে জানান,অন্যান্য বছরের তুলনায় এ বছর কোরবানীর পশুর ছাগলের ও মহিষের দাম একটু বেশি হলেও গরুর দাম অনেক কম হওয়ায় গরু ক্রয়ে ঝুকে পড়েছে মানুষ। ২৫থেকে ৩০ হাজার টাকা হলে কোরবানীর পশু গরু পাওয়া যায়।

যাহা অন্য বছর পাওয়া যায়নি। পশু ব্যবসায়ী নুর হোসেন ,মো: রাসেল হাওলাদার, মিরাজ হাওলাদার সহ অনেকে জানায়,অন্যান্য বছর গুলোতে হাটে এত পশুর আমদানী ছিল না, এ কারনে দামে ছিল অনেক বেশি। কোথাও পশুর খামার না থাকলেও এখন গ্রামের প্রতিটি পরিবারে পশু পালনে আগ্রহী হয়ে উঠেছে।

ভাগ