টাঙ্গাইল-৩ আসনের জনগণ আবারো আমানুর রহমান খান রানাকে এমপি হিসেবে দেখতে চায়।

576

টাঙ্গাইল(ঘাটাইল)প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার কৃতিসন্তান, বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও দানবীর আমানুর রহমান খান রানা এমপি টাঙ্গাইলের গর্ব।মানুষের সেবা ও কল্যানে কাজ করেন তিনি।মানুষের জন্য কিছু করতে এসে তিনি সর্বত্র সমাদ্রিত হয়েছেন।খুব সহজেই মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিতে পেরেছেন এমপি রানা।

টাঙ্গাইল জেলার ঘাটাইল উপজেলার আ,লীগ ও অন্যান্য সহযোগী সংগঠনের দীর্ঘ দিনের সুবিধা বঞ্চিত নেতা-কর্মীরা তাকে সহজেই বরণ করে নিয়েছেন।নেতৃবৃন্দদের সুখে-দুঃখে তিনি সব সময় খোঁজ খবর নিচ্ছেন।নির্যাতিত নেতা কর্মীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন বটবৃক্ষের মতন।আর্থিক সহযোগীতা ও দলীয় বিভিন্ন কাজে সহযোগীতা করেছেন। যা ইতিমধ্যে অন্যকোন নেতারধারা হয় নাই।অল্প সময়ে খুব সহজেই কোন বিনিময় বা স্বার্থ ছাড়া এমপি রানা নেতা-কর্মীদের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছেন। পুরো টাঙ্গাইল জুড়ে তার জয়জয়কার সাধারণ মানুষের মুখে মুখে তার নাম।

ইতোমধ্যে ঘাটাইলে যতজন সমাজ সেবার নাম করে আসছেন তারা কেউ পরে আমাদের খোজ খবর নেন নাই।এলাকার উন্নয়ন করে নাই।সবাই লুটেপুটে ব্যস্ত রয়েছেন।অথচ এমপি রানা জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সাধারণ মানুষের কল্যানে কোটি কোটি টাকা খরচ করেছেন।এমন নেতাই পারবে মানুষের সুখে-দুঃখে সাথী হয়ে থাকতে।মানুষের কল্যানে কাজ করতে করতে এক শ্রেনী দালাল,স্বাধীনতা বিরোধীচক্রের ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন এমপি রানা। বর্তমানে তিনি মিথ্যা মামলায় কারাবন্দী। আমরা ঘাটাইলের সর্বস্তরের নেতাকর্মী ও সাধারণ জনগণ অনতিবিলম্বে এমপি রানার মুক্তি চাই।মিথ্যা মামলা থেকে মুক্তি দিয়ে তাকে আবারো মনোনয়ন দেওয়া হোক।ঘাটাইলে এমপি রানাই একমাত্র নৌকার সুযোগ্য প্রার্থী।

ভাগ