চমেকে হাসপাতালে ম্যামোগ্রাফি ও রেডিওথেরাপী মেশিন উদ্বোধন

22

আনিসুর রহমান

ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীদের স্তনের টিউমার, ক্যান্সারসহ বিভিন্ন রোগ নির্ণয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চালু হচ্ছে ম্যামোগ্রাফি মেশিন। একই সাথে ফুসফুস,মুখগহবর,রক্তনালি এবং জরায়ু ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীদের জন্য কোবাল্ট মেশিন এবং ব্রাকিথেরাপি মেশিনের বাংকার উদ্বোধন করা হয়েছে।

আজ সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন ১২ কোটি টাকা ব্যয়ে স্থাপনকৃত এই মেশিন তিনটি উদ্বোধন করেছেন। অত্যাধুনিক এই মেশিনগুলোর উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে চট্টগ্রাম অঞ্চলের ক্যান্সার আক্রান্ত প্রায় ২ লাখ রোগীকে বাঁচানোর স্বপ্ন দেখাচ্ছে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।

সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, চট্টগ্রাম অঞ্চলের প্রায় ৪ কোটি মানুষের চিকিৎসা সেবা চাহিদা পূরণ করছে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এই চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানের সেবা চাহিদা নিশ্চিতে বিভিন্ন যন্ত্রপাতি সরবরাহ করেছে।
এখন ম্যামোগ্রাফি ও রেডিও থেরাপী মেশিনও চলে এসেছে।
তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে একমাত্র রাজশাহী এবং চট্টগ্রামে ক্যান্সার রোগের এই মেশিন স্থাপন করা হয়েছে। ঢাকার মহাখালীতে ক্যান্সার গবেষণা ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল একমাত্র বিশেষায়িত সরকারি ক্যান্সার হাসপাতাল হিসেবে চিকিৎসা সেবা দিচ্ছে।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়সহ মোট ৮টি প্রতিষ্ঠানে এখন ক্যান্সার আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা হলেও সেখানে প্রয়োজনীয় রেডিওথেরাপির আধুনিক যন্ত্রপাতি নেই।

রোগী সেবা নিশ্চিতে চমেকে পর্যাপ্ত চিকিৎসক এবং কোয়ালিফাইড নার্সের স্বল্পতা রয়েছে। এ স্বল্পতা পূরণে আমাদেরকে পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে।

চমেক হাসপাতাল পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. জালাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ডা.অশোক কুমার দত্ত,বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশ সভাপতি ডা. মুজিবুল হক খান,সাধারণ সম্পাদক ডা.ফয়সল ইকবাল চৌধুরী, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সাহাব উদ্দিন,মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফফর আহমেদ,হৃদ রোগ বিভাগীয় প্রধান ডা. অধ্যাপক প্রবীর কুমার দাশ,রেডিওলজি বিভাগীয় প্রধান ডা.অধ্যাপক সুভাষ মজুমদার,রেডিও থেরাপি বিভাগীয় প্রধান ডা. সাজ্জাদ মো. ইউসুফ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

ভাগ