“কোটালীপাড়ায় মনোহর মার্কেট-ডগলাস রাস্তায় ক্ষতিপুরনের দাবি এলাকাবাসির”

4

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় মনোহর মার্কেট থেকে ডগলাস পর্যন্ত রাস্তা নির্মানে ক্ষয়-ক্ষতির ক্ষতিপুরনের দাবি এলাকাবাসির। সরেজমিনে জানা যায়, উপজেলার খাগবাড়ী গ্রামের মৃত ধীরেন্দ্রনাথ বিশ্বাসের ছেলে জেমস বিশ্বাস ছোটন (৪৫) এর ২৮নং গোবিন্দপুর মৌজার হাল ৯২৯নং ক্ষতিয়ানের বিআরএস ৮৯২নং দাগের ৩৩ শতাংশ বাড়ীর জায়গায় প্রাচীর ঘেরা বসত বিল্ডিং, ডিপ টিউবয়েল, সেপ্টিট্যাংক রয়েছে।
রাস্তা নির্মানে ন্যায্য ক্ষতি পূরণ না দিয়েই স্থানীয় সরকার জোরপূর্বক প্রাচীর ভেঙ্গে ফেলার অপকৌশল চালিয়ে আসছে বলে জানান ভুক্তভোগি জেমস বিশ্বাস। তিনি আরো বলেন- পাশে সরকারি খাল রয়েছে, যদি খালটির কিছু অংশ ভরাট করে রাস্তাটি নির্মান করা হয় তাহলে আমরা গরবী-অসহায় মানুষেরা একটু রেহাই
পেতাম এবং রাস্তাটি সোজাও হত।

এ ছাড়াও মনোহর মার্কেটের পাশে একই রাস্তায় যে ব্রীজটি নির্মান করা হয়েছে, ঐ জায়গার মালিক মৃত অভিলাশ মন্ডলের চার ছেলে সুবল মন্ডল, বলরাম মন্ডল, গোপাল মন্ডল ও হারান মন্ডলের একই মৌজায় বিআরএস ৬৫নং ক্ষতিয়ানে ৩৭৮নং দাগে ৪২ শতাংশ বাড়ীর জায়গার মধ্যে দুইটি বসত ঘরের জায়গাসহ ১০/১২ শতাংশ জায়গা ব্রীজ ও রাস্তায় ন্যায্য ক্ষতি পুরণ না দিয়ে যবর দখল
করে নিয়ে নেয়। ভূমি মালিকগন অসহায় গরীব, ঐ জমিটুকু ছাড়া তাদের আর কোন জমিজমা নেই।

ক্ষতিগ্রস্তরা বলেন- যাহাতে এই জমিজমার ন্যায্য ক্ষতিপূরন পাইতে পারি তাহার জোর দাবি জানাই। এ বিষয়ে রাধাগঞ্জ ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড সদস্য হরশিত বাড়ৈ বলেন- জনস্বার্থে রাস্তাটি একান্ত দরকার। কিন্তু ক্ষতিগ্রস্ত ভূমি মালিকরা যাতে ন্যায্য ক্ষতিপুরন পাইতে পারে, আমি স্থানীয় সরকারের কাছে সেই দাবি করছি।

এম আরমান খান জয়
ভিন্নবার্তা, গোপালগঞ্জ

ভাগ