কদম্বরীর কাহিনী………….

13

চলো আজ গল্প শোনাই —
কদম্বরী আর রবী ঠাকুরের
নয়নে আসিবে ছলছল পানি সমুদ্রের
ছোট্ট কদম্বরী খেলবে পুতুল দিয়ে
সেই সময়ে সে এলো ঘরে রবী ঠাকুরের বৌদি হয়ে,
দুজন দুজনার খেলার সাথী
খুব আনন্দে করতো দুজন মাতামাতি,
রাঙ্গা সূর্য দেখতো দুজন
কতো আপন ছিলো
দুজন মিলে করতো গুঞ্জন,
লতা পাতার মত বড় হলো
কদম্বরীর শুধু ছিল না রুপ
ছিল তার অনেক গুন,
মুগ্ধ হয়ে রবী ঠাকুর
ছন্দে আনন্দে লিখতো কবিতা করতো গান
কাদম্বরী ছিল তার কবিতা আর গানের প্রাণ
বেশ আনন্দে ছিল তারা
ছন্দে আনন্দে দিশে হারা ,
নতুন দা আর রবি গেলো উৎসবে
ঐদিন নতুন দা থেকে গেল
মেজো বৌদির আদেশ ছিল
নতুন দা আদেশ দিলেন
রবি তুমি বাড়ি যাও , বাড়িতে তোমার একা বৌঠান
বৃষ্টিতে ভিজে ও তার যেতেই হবে
সে দিন যে বৌদির জন্মদিন ছিল
ভিজে একাকার হয়ে রবি গেল
নতুন বৌদি ঠাকুর কে বারণ করলো
ভালোই তো ছিলো কবি
তুফান এসে গেল সবি,
রবী আনলো নতুন বৌ
বৌদির আর কে নেয় খবর
এদিকে নতুন দা বেশ ভালোই আছেন
শুনেছি নাকি বিনোদিনীর কাছে সবই পাচ্ছেন ,
তাই তো কদম্বরীর নাই গো কাজ
ভেঙে দিয়ে সব লাজ
সন্তানের মুখ তো দেখেননি
তাই ছেড়ে গেলেন মায়া জালের কাহিনী………….

— হাফসা ইসলাম
০৯ – ০১ – ২০১৯ইং

ভাগ